আফগানিস্তানের নতুন শাসক তালেবান মেয়েদের খেলাধুলা নিষিদ্ধ করার ইঙ্গিত দেয়ার পর, বিষয়টি নিয়ে সবচেয়ে বেশি কথা বলছে অস্ট্রেলিয়া। তারা জানিয়েছে মেয়েদের খেলতে না দিলে পুরুষ দলের বিপক্ষে নভেম্বরে টেস্ট খেলবে না। এবার অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট দলের অধিনায়ক টিম পেইন জানিয়েছে তালেবান যদি তাদের অবস্থান পরিবর্তন না করে তাহলে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও আফগানদের বিপক্ষে খেলবে না অজিরা। তাছাড়া পেইন প্রশ্ন তুলেছেন অস্ট্রেলিয়া সরকার, দেশটির ক্রিকেট বোর্ড বিষয়টি নিয়ে সরব থাকলেও আইসিসি কেন চুপ করে আছে? তার মতে আফগানিস্তানের বিষয়ে আইসিসির কঠিন সিদ্ধান্ত নেয়া উচিত। তিনি আরো জানিয়েছেন একটি দেশের অর্ধেক জনসংখ্যা হলো নারী। যে দেশ অর্ধেক মানুষের অধিকার বঞ্চিত করেছে তাদের বিপক্ষে তার দেশ খেলবে না।

এ ব্যপারে পেইন বলেন, ‘ আমরা ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার কাছ থেকে শুনেছি, অস্ট্রেলিয়া সরকারের বক্তব্য শুনেছি। কিন্তু এখন পর্যন্ত আইসিসির কাছ থেকে কিছু শুনিনি। খুব সম্ভবত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে আফগানিস্তান আছে বিধায় তারা চুপ করে আছে। জানি না এ সময়ের মধ্যে কি হবে। তাদের কি আইসিসি নিষিদ্ধ করবে?’

পেইন তার বক্তব্যে আরো বলেন যদি অন্য দেশগুলো আফগানিস্তানের বিপক্ষে না খেলে ও তাদের আমন্ত্রন না জানায় তাহলে হয়তো তালেবান চাপে পরবে। এ ব্যপারে পেইন বলেন, ‘দলগুলো যদি তাদের বিপক্ষে না খেলে, নিজেদের মাটিতে আমন্ত্রণ না জানায় তখন দেখা যাবে আইসিসির ইভেন্টগুলোতে কিভাবে তারা খেলে।’

আফগানিস্তানের নারী ক্রিকেটারদের নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার এত সরব হওয়ার বিষয় নিয়ে বিরক্ত অনেক দেশ। তারা বলছে এখনই আফগানিস্তানের বিষয়টি নিয়ে সিদ্ধান্ত নিলে হবে না। বিষয়টি আরো কয়েকদিন পর্যবেক্ষণ করতে হবে। কারণ এখনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানায়নি তালেবান।